স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের মধ্যে মাত্র ১০ ভাগ গ্রাহক 4G সেবা পাবেন ।

স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের মধ্যে মাত্র ১০ ভাগ গ্রাহক 4G সেবা পাবেন ।

স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের মধ্যে মাত্র ১০ ভাগ গ্রাহক 4G সেবা পাবেন ।
Feb 16
05:372018
134

১৯ ফেব্রুয়ারির পরে চালু হতে যাচ্ছে ফোরজি। তবে দেশের স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের মধ্যে মাত্র ১০ ভাগ গ্রাহক এটি ব্যবহার করতে পারবেন। কারণ দেশের বর্তমান তিন কোটির কিছু বেশি স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর মধ্যে মাত্র ১০ ভাগের ফোনসেট ফোরজি সমর্থিত। বাংলাদেশ মোবাইল ফোন ইমপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমপিআইএ) সভাপতি রুহুল আলম আল মাহবুব মোবাইল ফোন আমদানিকারকদের বরাত দিয়ে এ কথা বলেছেন।
মোবাইল ফোন অপারেটরগুলোর সংগঠন অ্যামটবের সাধারণ সম্পাদক টিআইএম নুরুল কবিরের মতে, দেশে এখনই ফোরজি চালুর উপযুক্ত পরিবেশ তৈরি হয়নি। কারণ হিসেবে তিনি জানিয়েছেন, সংশ্লিষ্ট অনেক ইস্যুর এখনও মীমাংসা হয়নি। এদিকে মোবাইল ফোনের অপারেটর ও আমদানিকারকরা বলছেন, তারা ফোরজি সেবাদানের জন্য রেডি, যেখানে গতিই হবে মূল আকর্ষণ।
একবছর আগে থেকে মোবাইল অপারেটরগুলো ফোরজি সিম বাজারে ছাড়তে শুরু করে। এর মাঝে তারা নেটওয়ার্ক আপডেট করেছে এবং পরীক্ষামূলক অপারেশন চালিয়ে সফলতাও পেয়েছে বলে জানিয়েছে। অপেক্ষা ছিল তরঙ্গ নিলাম ও ফোরজির লাইসেন্স হস্তান্তরের। তরঙ্গ নিলাম সম্পন্ন হয়েছে। লাইসেন্স হাতে পেলেই চালু করবে ফোরজি। ১৩ ফেব্রুয়ারি স্পেক্ট্রাম তথা তরঙ্গের নিলামের পরপরই তারা যেকোনো সময় ফোরজি চালুর জন্য তৈরি বলে ঘোষণা দেয়।
এখন দেশে  থ্রিজির গড় গতি বলা হচ্ছে ৩.৭৫ এমবিপিএস। ফোরজিতে এ গতি ১০ এমবিপিএস ছাড়িয়ে যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ফোরজির গ্লোবাল স্ট্যান্ডার্ড গতি ১৬ এমবিপিএস।

নির্বাচিত সংবাদ

More Articles

অনলাইন জরিপ

সরকারের নীতিমালা অনুযায়ী দেড় বছরের মধ্যে প্রতিটি জেলায় ফোর-জি সেবা চালু হবে বলে মনে করেন কি?

পুরোনো ফলাফল